1. live@bisshosangbad.com : বিশ্ব সংবাদ : বিশ্ব সংবাদ
  2. info@www.bisshosangbad.com : বিশ্ব সংবাদ :
সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ০৭:৩৭ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ :
সংবাদ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী… বিরক্ত হয়ে কোটা বাদ দিয়েছিলাম, কি হয় দেখার জন্য। বাংলাদেশ তৃণমূল সাংবাদিক ও মানবাধিকার সোসাইটি’এর উদ্দোগে মিরপুরে মানববন্ধন। দেশে কোনো বিচার নেই———আদালতে বিএনপি নেতা মাহবুব চৌধুরী। কোটাব্যাবস্হা পূর্ণবহাল মেধাবী শিক্ষার্থীদের সাথে প্রহসন ——— বিএনপি নেতা মাহবুব চৌধুরী। কোটাবিরোধী আন্দোলনের কোনো যোক্তিকতা নেই : প্রধানমন্ত্রী। মেডিকেল কলেজ দখলের চেষ্টায় স্বাচিপ সভাপতি! দুদকের তদন্ত, পুলিশের সাবেক কর্মকর্তার অবৈধ সম্পদের পাহাড়। ইসলামি ৬টি ব্যাংকের অবস্থা এখন আরও খারাপ। বাজার পরিস্থিতি, ঝাঁজ ছড়াচ্ছে পেঁয়াজ, অপরিবর্তিত মরিচের দাম। কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা রোবট এবার ভোটে দাঁড়ালো!

শিক্ষা খাতে দুঃসংবাদ——–বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী জননেতা মাহবুব চৌধুরী।

প্রতিবেদকের নাম:
  • প্রকাশিত: সোমবার, ৪ মার্চ, ২০২৪
  • ২৯০ বার পড়া হয়েছে

স্টাফ রিপোর্ট।

শিক্ষা খাতে দুঃসংবাদ লিখেছেন , সিলেট নগরীর আব্দুল গফুর স্কুল এন্ড কলেজ গভর্নিং বডির সাবেক সভাপতি, ইংলিশ মিডিয়াম স্কুল অভিভাবক এসোসিয়েশনের সভাপতি, বিএনপির প্রভাবশালী নেতা, বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী জননেতা মাহবুব চৌধুরী।

নতুন শিক্ষাক্রমতো মূল ধারার শিক্ষাকে পুরো ধ্বংস করে দিবেই। এত প্রতিবাদ, এত কথা তবুও সরকার নাছোড় বান্দা। এর মধ্যে আবার জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে থাকা কলেজগুলো জেলা ও বিভাগের পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে যাচ্ছে। এখন থেকে প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে ১৫% ট্যাক্স দিতে হবে। সংশোধিত এডিপিতে শিক্ষা খাতে বড় কোপ। পৃথিবীর ভালো বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর প্রশাসন কি করে? সর্বদা চেষ্টা করে কি করে তার শিক্ষকদের মেধার সর্বোচ্চ ব্যবহার করা যায়। তারা চেষ্টা করে যেই কাজ একজন কম শিক্ষিত ও কম যোগ্য মানুষদের দিয়ে করানো যায় সেই কাজ তারা তাদের সবচেয়ে মেধাবী ও যোগ্য শিক্ষকদের দিয়ে করায় না। তার জন্য তারা টিচিং অ্যাসিস্ট্যান্ট নেয়, পার্ট টাইম ও adjunct শিক্ষক নিয়োগ দেয়।
দুঃসংবাদ হলো এখন থেকে প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে ১৫% ট্যাক্স দিতে হবে। এইটা শেষমেশ কাদের ঘাড়ে পড়বে? আমরাতো আমাদের প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে চিনি। তারা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের চেয়ে বেশি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান। তাদের মালিক আছে এবং মালিকরা নানাভাবে মুনাফা, অতি মুনাফা নেয়। এখন কি মালিকরা মুনাফা নেওয়া কমিয়ে দিবে? মোটেও না। তারা ট্যাক্সের টাকাটা শিক্ষার্থীদের কাছ থেকেই আদায় করবে। এর মানে প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ে লেখাপড়া আরো ব্যয়বহুল হবে। দেশের ছেলেমেয়েদের শিক্ষার দায়িত্ব সরকারের। সরকারতো দায়িত্ব পালন করছেই না উল্টো প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়, স্কুল, কলেজে ট্যাক্স বসিয়ে শিক্ষাকে ব্যয়বহুল করছে। ফলে শিক্ষার্থীরা আরো বিদেশগামী হবে। ফলে দেশের বৈদেশিক মুদ্রা আরো বেশি হারে বিদেশে চলে যাবে। শুধু যদি দেশে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মান অর্থাৎ উচ্চ শিক্ষার মান বাড়াতে পারতাম আমাদের কি ধারণা আছে কি পরিমান ডলারের সাশ্রয় হতো। ঐদিকে শিক্ষা খাতে মোট দেশজ উৎপাদনের (জিডিপি) অনুপাতে এশীয় প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে সবচেয়ে কম খরচ করে আমার সোনার বাংলাদেশ। শিক্ষা খাতে জিডিপির ১.৮০℅ শতাংশেরও কম। করবে না কেন? এইসব বরাদ্দের দায়িত্বে যারা তারা বা তাদের সন্তানরা কি এই দেশের পাবলিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পড়ে বা এই দেশের সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা নেয়? এইখানেই সকল সমস্যার ভুত লুকিয়ে আছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন

পুরাতন সংবাদ পড়ুন

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট